পাক্ষিক চিন্তা ৫ সেপ্টেম্বর ২০১০ সংখ্যা


পাক্ষিক চিন্তা || Friday 26 November 10

গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের প্রধান প্রতিষ্ঠান সমূহকে কার্যকর করে গড়ে তুলতে একটাকে আরেকটার অযাচিত হস্তক্ষেপ থেকে পৃথক রাখা হয়। ভারসাম্য রক্ষায় কাজের এইবিভাজন নীতি গড়ে উঠেছে নাগরিকের অধিকার, নিরাপত্তা ও মর্যাদার নিরঙ্কুশ সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য। কিন্তু বাংলাদেশের ক্ষেত্রে সেটা হয় নাই। নাগরিকেরঅধিকার ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গের মধ্যে ক্ষমতার বিভাজন কিম্বা ভারসাম্য রক্ষার কোন বন্দোবস্ত হিশাবে বিচার বিভাগ স্বাধীন করা হয় নাই।

  • মুখ দেখে যায় কি চেনা?
  • আত্মপরিচয় ও বাঙালিত্বের যুদ্ধ খায়েশ
  • ইনসাফ ও নাগরিকের মর্যাদা
  • আস্বাভাবিক তাড়াহুড়ায় ভাড়াভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র
  • আবাসন ব্যবসায়ীরা কি ধাকে বাসযোগ্য নগর থাকতে দেবে?
  • পাঁককোলা গ্রামে মনসা
  • আনন্দধামে মনসা
  • আদোনিস ও আপন দুনিয়া গঠনের বয়ান
  • কাব্য ও কোরানের শক্তি
  • বাংলাদেশে বিচারিক দুর্নীতি
  • উচ্চ আদালত কাঁচের ঘর, যে কোন সময় ভেঙ্গে পড়তে পারে
  • সত্য ও ন্যায়ের সংগ্রামে মূল্য দিতে হয়
  • কী ছিল সেই প্রতিবেদনে?
  • এক দিনের প্রতীকী কারাদন্ড
  • ইনডিয়ার আদালত অবমাননা আইনে একনজর
  • আদালতের প্রতি জনগনের আস্থা
  • না সরকার না উচ্চ আদালত যোগজ বিচারক চান না কেউ